Published On: Thu, May 3rd, 2018

তরমুজের দানা পানিতে ফুটিয়ে মাত্র ২দিন খান, রাতারাতি পরিবর্তনে নিজেই বিস্মিত হবেন

তরমুজের মধ্যে ৯০ ভাগই জল। তার মানে এই নয়, দাম দিয়ে তরমুজ কিনে পুরো টাকাটাই জলে গেল। হাইড্রেশানের সেরা উত্‍‌স হওয়ায়, আমাদের শরীরের কোষকে হাইড্রেটস করে।

pH-এর ভারসাম্য রক্ষা করে। থাকায় ইরেক্টাইল ডিসফাংশনের সমস্যাতেও তরমুজ দারুণ কাজ দেয়। যে কারণে একে প্রাকৃতিক ভায়াগ্রা বলে। তরমুজের মতো এর দানাও ফেলনা নয়।

তরমুজের দানা জলে ফুটিয়ে মাত্র ২দিন খান, রাতারাতি পরিবর্তনে নিজেই বিস্মিত হবেন। ফ্যাটি অ্যাসিড, বেসিক প্রোটিন ছাড়াও রয়েছে ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ ও আয়রনের মতো মিনারেলস। আবার ভিটামিন বি-এরও প্রায় পুরোটাই প্রচুর পরিমাণে রয়েছে।

থিয়ামিন, নিয়াসিন এবং ফলিক অ্যাসিড। ক্যালরি রয়েছে মাত্র ৬০০ গ্রাম।মূত্রনালির রোগে তরমুজের দানা অত্যন্ত ভালো কাজ দেয়। কিডনির পাথরকে প্রসাবের সঙ্গে বাইরে বের করে দেয়।

যে ভাবে খাবেন:-

তরমুজের দানাগুলো এক জায়গায় জড়ো করে, ভালো করে ধুয়ে দু-লিটার জলে ১৫ মিনিট ধরে

ফুটিয়ে চায়ের মতো তৈরি করে নিন। পরপর দু-দিন খেয়ে, তৃতীয় দিন বিশ্রাম দিন। আবার দু-দিন মিশ্রণটি পান করুন। এ ভাবে কয়েক সপ্তাহ খেলেই পরিবর্তন লক্ষ্য করবেন।

তরমুজের দানার আরও কিছু গুণাগুণ:-
হার্টের স্বাস্থ্য ভালো রাখে: তরমুজের দানায় রয়েছে ম্যাগনেসিয়াম। এই ম্যাগনেসিয়াম হার্টকে সঠিক ভাবে চালনা করে। রক্তচাপকেও নিয়ন্ত্রণ করে। পাশাপাশি বিপাকেও সাহায্য করে। হার্টের অসুখ ও হাইপার টেনশনের হাত থেকে মুক্তি পেতে চাইলে, তরমুজের দানার তুলনা নেই।

অকাল বার্ধক্য দূর করে: তরমুজের দানায় থাকা অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট অকাল বার্ধক্য দূর করে। ত্বককে তাজা রাখে। ব্রণর সমস্যা দূর করে। যাঁদের শুষ্ক ত্বক, তাঁরাও এটি ময়শ্চারাইজিং ক্রিমের মতো ব্যবহার করতে পারেন।

চুলের গোড়া মজবুত করে: তরমুজের দানায় উচ্চমাত্রায় প্রোটিন ও অ্যামাইনো অ্যাসিড রয়েছে। যা চুলের গোড়াকে মজবুত করে তোলে। জেল্লা আনে।

ভিটামিন B6-এর ঘাটতি পূরণ করে: B6 হল ভিটামিন বি-এর মধ্যে সবথেকে জটিল। যার কাজ হল কার্বোহাইড্রেটকে শক্তিতে রূপান্তর করা। এর অভাবে বেরিবেরি অসুখ হয়। তরমুজের দানা এই ঘাটতি পূরণ করে।

প্রয়োজনীয় অ্যামাইনো অ্যাসিডের জোগান দেয়: শরীরের জন্য অ্যামাইনো অ্যাসিড একটি জরুরি উপাদান। আর্জিনিন এবং লাইসিনের মতো অ্যামাইনো অ্যাসিডের অন্যতম উত্‍‌স হল তরমুজের দানা। লাইসিন ক্যালসিয়ামকে শুষে নিয়ে হাড়ের গঠন মজবুত করে। টিস্যুকে ঠিক রাখে।

স্মৃতিবিভ্রমে: কিছুই মনে রাখতে পারছেন না, আজকাল সবই ভুলে যান। নিয়মিত তরমুজের দানা খাদ্যতালিকায় রেখে দিন। কয়েক দিনের মধ্যে ফারাক নিজেই বুঝবেন। স্মৃতিশক্তি চনমনে হয়ে উঠবে।

পুরুষের ফার্টিলিটির ক্ষমতা বাড়ায়: তরমুজের দানায় রয়েছে লাইকোপেন। যা পুরুষের উর্বরতা শক্তি বাড়াতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান।

নখ ভঙ্গুর?: চিন্তা না-করে তরমুজের দানায় ভরসা রাখুন। দুর্বল নখ শক্তপোক্ত হবে।
============================
অবশেষে ক্যান্সারের টিকা আবিষ্কার হলো এবার রোগ মুক্ত হবে শত কোটি লোক। শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন

অবশেষে ক্যান্সারের টিকা আবিষ্কৃত হয়েছে। এই টিকা শরীরের যেকোনো অংশে ছড়িয়ে থাকা ক্যান্সারের জীবাণু ধ্বংস করবে বলে দাবি করছেন গবেষকেরা।

তবে ইতিহাস সৃষ্টিকারী এই টিকা এখনও পরীক্ষামূলক অবস্থায় রয়েছে। আর প্রথমবারের মত এক রোগীর শরীরে এই টিকা প্রয়োগ করার পর ইতিবাচক ইঙ্গিত পাওয়া গেছে বলে দাবী করছেন বিশেষজ্ঞরা।
লন্ডনের বেকেনহ্যাম এলাকার বাসিন্দা কেলি পটার (৩৫) নামের এক নারীর শরীরে প্রথম ওই টিকা প্রয়োগ করা হয়েছিল। জরায়ুর ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন ওই নারী। তার শরীরে যখন ক্যান্সারের টিকা প্রয়োগ করা হয়েছিল সে সময় তার ক্যান্সার চতুর্থ পর্যায়ে ছিল।

তার লিভার এবং ফুসফুসের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ছিল ক্যান্সারের জীবাণু। টিকা দেওয়ার পর তার শরীরে ক্যান্সারের ব্যাপ্তি এখন অনেকটা স্থিতিশীল রয়েছে। একইসঙ্গে লিভার ও ফুসফুসের মধ্যে জীবাণু ছড়িয়ে পড়াও বন্ধ হয়েছে। আগের চেয়ে এখন অনেক ভালো আছেন বলে জানিয়েছেন কেলি।

ক্যান্সার শরীর থেকে পুরোপুরি নির্মূল করতে এই টিকার সঙ্গে কম মাত্রার কেমোথেরাপি দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ জেমস স্পাইসার। এই টিকা শরীরে প্রবেশ করলে তা ভাল কোষ গুলোকে অক্ষুণ্ণ রেখে ক্যান্সারের ক্ষতিকর কোষগুলোকে খুঁজে বের করে ধ্বংস করতে সক্ষম।

Read also:

 মশা তাড়ানোর সহজ ও কার্যকরী উপায়

বর্তমানে যে অসুখটি সবাইকে ভোগাচ্ছে তার নাম চিকুনগুনিয়া। ডেঙ্গু কিংবা ম্যালেরিয়ার মতো ভয়াবহ না হলেও এর যন্ত্রণাকে উড়িয়ে দেয়া যায় না। আর এই অসুখ ছড়িয়ে বেড়াচ্ছে যে পতঙ্গটি তার নাম মশা। এখন যেহেতু বর্ষাকাল তাই এখানে সেখানে সহজেই পানি জমে থাকছে এবং মশারাও মনের আনন্দে বংশ বিস্তার করে যাচ্ছে। এই বিরক্তিকর ও যন্ত্রণাদায়ক পতঙ্গটি বড় বড় সব অসুখের কারণও। মশা তাড়াতে তাই প্রতিদিনই নানা রকম উপায় অবলম্বন করে থাকেন সবাই।

তারমধ্যে সব পদ্ধতি স্বাস্থ্যকর তো নয়ই, বরং কিছু কিছু উপায় স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকরও। তবে চিন্তার কিছু নেই। মশা তাড়াবার আছে প্রাকৃতিক উপায়। কী সেই উপায়? চলুন জেনে নেয়া যাক-

কর্পূর:
মশা কর্পূরের গন্ধ একেবারেই সহ্য করতে পারে না। আপনি যেকোনো ফার্মেসিতে গিয়ে কর্পূরের ট্যাবলেট কিনে নিতে পারেন। একটি ৫০ গ্রামের কর্পূরের ট্যাবলেট একটি ছোট বাটিতে রেখে বাটিটি পানি দিয়ে পূর্ণ করুন। এরপর এটি ঘরের কোণে রেখে দিন। তাৎক্ষণিকভাবেই মশা গায়েব হয়ে যাবে। দুদিন পর পানি পরিবর্তন করুন। আগের পানিটুকু ফেলে দেবেন না। এই পানি ঘর মোছার কাজে ব্যবহার করলে ঘরে পিঁপড়ের যন্ত্রণা থেকেও মুক্তি পাবেন।

লেবু ও লবঙ্গ:
একটি গোটা লেবু খণ্ড করে কেটে নিন। এরপর কাটা লেবুর ভেতরের অংশে অনেকগুলো লবঙ্গ গেঁথে দিন। লেবুর মধ্যে লবঙ্গের পুরোটা শুধুমাত্র মাথার দিকের অংশ বাইরে থাকে এমনভাবে লবঙ্গ গেঁথে দিন। এরপর লেবুর টুকরোগুলো একটি প্লেটে রেখে ঘরের কোণায় রেখে দিন। ব্যস, এতেই বেশ কয়েকটা দিন মশার উপদ্রব থেকে মুক্ত থাকতে পারবেন। এই পদ্ধতিতে ঘরের মশা একেবারেই দূর হয়ে যাবে। আপনি চাইলে লেবুতে লবঙ্গ গেঁথে জানালার গ্রিলেও রাখতে পারেন। এতে করে মশা ঘরেই ঢুকবে না।
====================
এশিয়ার মধ্যে শাকিবের মতো সুদর্শন স্মার্ট হিরো আর নেই’

কলকাতায় পুরোদমে চলছে ‘ভাইজান এলোরে’ ছবির শুটিং। এ ছবিতে ভাইজান চরিত্রে অভিনয় করছেন ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান। তার বিপরীতে অভিনয় করছেন ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবন্তী। ‘ভাইজান এলোরে’ ছবিটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে আছেন পায়েল সরকার। গত ১ মার্চ থেকে ছবির শুটিং শুরু হয়েছে। বর্তমানে ছবিটির প্রথম পর্বের শুটিং চলছে।

প্রথমেই টাইটেল গানের শুটিং করছেন তারা। এবারও শাকিব ভক্তদের মাঝে হাজির হচ্ছেন ভিন্ন লুকে। ইতোমধ্যে ছবির শুটিংয়ের কিছু স্থিরচিত্রে তাকে বেশ ধামাকা লুকেই গানের শুটিংয়ে অংশ নিতে দেখা গেছে। ছবিটি পরিচালনা করছেন ভারতের জয়দ্বীপ মুখার্জি। এর আগে একই পরিচালকের ‘শিকারি’ ও ‘নবাব’ ছবি দুটি বাংলাদেশ ও ভারতে মুক্তি পায়। ভিন্ন লুকের এ দুটি ছবি মুক্তি পাওয়ার পর দর্শকমহলে বেশ প্রশংসা পান শাকিব খান।

এদিকে শাকিব খান নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজে ভাইজান টিমের সকল সদস্য নিয়ে একটি ছবি পোস্ট করেন। ছবিতে সবাইকে বেশ হাসি খুশি দেখাচ্ছে। তবে ছবির মধ্যে সবার নজর চলে গেছে শাকিব খানের নতুন লুকের ওপর। ভক্তরা হঠাৎ প্রিয় অভিনেতাকে এভাবে দেখতে পেয়ে নানা কমেন্ট করতে থাকেন।

এক ভক্ত লিখেছেন, ‘টিমের মধ্যে সব চেয়ে লাগতেছে আমাদের সুপারস্টারকে, তারপরও সবাইকেই ভাল লাগছে। এটা বলার অপেক্ষা রাখেনা এই ঈদে হচ্ছে।’ আরেক ভক্ত লিখেছেন, ‘এশিয়ার মধ্যে শাকিবের মতো সুদর্শন স্মার্ট হিরো নেই। শাকিবকে নিয়ে বিগ বাজেট এবং মেধাবী পরিচালক আর উন্নত টেকনোলজির ছবি করতে পারলেই শাকিব নিঃসন্দেহে বলিউডের তিন খানকেও টপকে যাবেন।’

আরেক ভক্ত লিখেছেন, ‘ভাইজান এর মতো সিনেমা যদি করতে থাকেন তাহলে অল্প সময়ের মাঝেই কলকাতাতে টপ পজিশন এ থাকবেন।’ আরেক ভক্ত লিখেছেন, ‘আশাকরি মুভিটা অনেক সুন্দর হবে।’

Facebook Comments

About the Author

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>