Published On: Fri, Aug 18th, 2017

পূবাইল শুটিং স্পটে পরিচয়; একসঙ্গে অভিনয় তারপর উপস্থাপিকাকে ধর্ষণ

শরিফুল ইসলাম নান্টু (৩২) নামে এক মডেল নিজ স্ত্রী-সন্তানের খবর গোপন রেখে এক টেলিভিশন উপস্থাপিকা ও তরুণী মডেলের (২৩) সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এক পর্যায়ে বিয়ের কথা বলতে ওই প্রেমিকার বাসায় গিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন শরিফুল। কৌশলে ধর্ষণের ভিডিও এবং আপত্তিকর ছবি ধারণ করে পরে তরুণীকে ব্ল্যাকমেইল করা চেষ্টাও করেন।

 

গত বুধবার (১৬ আগস্ট) রাতে রাজধানীর কদমতলী থানায় এমন অভিযোগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন এবং তথ্য প্রযুক্তি আইনে একটি মামলা (মামলা নং-৪২) দায়ের করেন ওই মডেল তরুণী।

 

তিনি শনির আখড়া এলাকায় বোনের বাসায় থেকে পড়াশোনা করেন এবং একটি টেলিভিশনে উপস্থাপিকা ও অভিনেত্রী হিসেবে কাজ করেন। অভিনয়ের সূত্র ধরে গত ২৭ মার্চ পূর্বাচল শ্যুটিং স্পটে শরিফুলের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। দীর্ঘদিন একসঙ্গে অভিনয় করার এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

 

গত ১২ জুলাই শরিফুল, ওই তরুণীসহ ২৮ জন মডেল ভারতে একটি ফ্যাশন শোতে অংশ নিতে যান। নয়াদিল্লিতে কাজ শেষে শরিফুল তরুণীকে আজমীর শরীফে নিয়ে যান। কোনোদিন তার সঙ্গে প্রতারণা করবেন না বলে সেখানে প্রতিজ্ঞা করেন শরিফুল।

 

২১ জুলাই দেশে ফেরার পর থেকে প্রেমিকাকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকেন শরিফুল।

তরুণী এজন্য পরিবারে বিয়ের প্রস্তাব পাঠাতে বলেন।

গত ২ আগস্ট দুপুরে বিয়ের কথা বলতে তাদের বাসায় যান শরিফুল। সে সময় তার বোন, দুলাভাই এবং বোনের সন্তানরা বাসার বাইরে ছিল। এ সময় শরিফুল তাকে গায়ের জোর খাটিয়ে ধর্ষণ করেন। শরিফুল বিষয়টি কাউকে না জানানোর হুমকি দিয়ে বাসা থেকে বের হয়ে যান।

 

এ ঘটনার পর তরুণী শরিফুলের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দিলেও বিভিন্ন নাম্বার থেকে ফোন করে শরিফুল গোপণে ধারণ করা ধর্ষণের ভিডিও এবং ছবি অনলাইনে প্রকাশ করে দেবেন বলে হুমকি দিতে থাকেন।

Facebook Comments

About the Author

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>